ফের লখিমপুর খেরি, এবার দলিত নাবালিকাদের খুনে সরগরম পরিস্থিতি

21

ফের দলিত হত্যার শিরোনামে উঠে এল উত্তরপ্রদেশ৷ ফের আলোচনায় লাখিমপুর খেরি। বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে কৃষকদের গাড়ি চাপা দিয়ে মারার ঘটনায় বারবার আলোচিত এই এলাকায় দুই দলিত কন্যাকে খুন করা হয়। নিগহাসান থানা এলাকায় আখের খেত থেকে উদ্ধার হয় দুই বোনের ঝুলন্ত দেহ৷ একজনের বয়স ১৭ ও অপরজন ১৫ বছ৷ এখনও অবধি ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

দুই নাবালিকার মা পুলিশের কাছে জানায়, তাঁর মেয়েদের তিন ঘন্টা ধরে খোঁজ মিলছে না৷ অভিযোগ, পাশের গ্রামের কিছু যুবক মোটরসাইকেলে করে তাঁর মেয়েদের তুলে নিয়ে গেছে। পরে তাদের জামার রঙ পুলিশের কাছে জানানো হয়৷ ধৃত চার জনের মধ্যে তিন জনের পরিচয় জানা যায়নি।

নাবালিকাদের মা জানিয়েছে, তিনি আটকাতে গেলে তাঁকে বাধা দেওয়া হয়। এমনকি তাঁর অপরের অত্যাচার চালানো হয়৷ পরে পরিবারের সদস্যরাই আখের ক্ষেতের পাশে দুই জনের দেহ উদ্ধার করে। তাঁর অভিযোগ, মেয়েদের ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে।

পুলিশ অফিসার লক্ষ্মী সিং জানিয়েছেন, দুই জনের দেহ ঝুলন্ত অবস্থায় মিলেছে। তাঁদের ওড়না দিয়েই ঝোলানো হয়েছিল। কিন্তু কোনও আঘাতের চিহ্ন মেলেনি। ২০১৪ সালে বাদুয়ানের একই ঘটনা ঘটেছিল৷ যেখানে দুই বোনের দেহ ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয়েছিল।

দোষীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে সরব হয় গ্রামবাসীরা৷পুলিশের তরফে আশ্বস্ত করতেই বিক্ষোভ উঠে যায়। সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন সমাজবাদী পার্টি প্রধান অখিলেশ যাদব৷ তাঁর কথায়, যোগী আদিত্যনাথের সরকারে মা বোনেদের ওপর রোজ অত্যাচার চলছে৷ সরকার দ্রুত তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিক৷ দাবি তাঁর।