18 C
Kolkata
Sunday, February 5, 2023

নাড্ডাকে গাড্ডায় ফেলেছেন অনুরাগ! মূল্যায়নে বিজেপি

- Advertisement -

বৃহস্পতিবারে দুই রাজ্যের ফলাফল ঘোষণা হয়েছে। ১৫৬ টি আসনে জিতে গুজরাতে রেকর্ড গড়েছে বিজেপি (BJP)। ময়দানে নেমে মোদি-অমিত শাহের খাটুনি বিফলে যায়নি, তা প্রমাণিত হয়েছে। কিন্তু হিমাচল প্রদেশের (Himachal Pradesh) নির্বাচনে কংগ্রেসের জয় দেখে চমকে উঠেছে রাজনৈতিক মহল। কার্যত মুষড়ে পড়া সংগঠন নিয়ে কংগ্রেসের এই জয়ের পিছনে কী সমীকরণ রয়েছে। খুঁজে বের করতে নেমে চোখ কপালে উঠেছে।

- Advertisement -

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের রাজ্য গুজরাতে এই ফলাফল দেখে বিজেপি কর্মীদের পাশাপাশি যেভাবে আদা জল খেয়ে প্রধানমন্ত্রী নিজে নেমেছিলেন তাতে মোটেও অবাক হচ্ছে না রাজনৈতিক মহল৷ কিন্তু হিমাচল প্রদেশের এই ফলাফলে গাড্ডায় পড়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। এর পিছনে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরের মদত রয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

- Advertisement -

সূত্রের খবর, প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পরেই প্রকাশ্য মঞ্চ থেকে এর বিরোধিতা করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। বাবা প্রেমকুমার ধুমলকে টিকিট না দেওয়ায় দলেরই অন্দরে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি৷ কারণ, ২০১৭ সালে প্রেমকুমার ধুমলকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে লড়াই করলেও জেপি নাড্ডার হস্তক্ষেপের কারণে পরবর্তীতে তা হয়নি। তার ওপর বিজেপিতে টিকিট না পেয়ে বহু বিক্ষুব্ধরা প্রার্থী হয়েছিলেন। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়েছে কংগ্রেস।

বিজেপির এই ছন্নছাড়া মনোভাব নিয়ে ইতিমধ্যেই দলের অন্দরে মূল্যায়ন শুরু হয়েছে৷ সেখানে স্পষ্ট, কংগ্রেসের নেতারা নির্বাচন নিয়ে সেভাবে তৎপরতা দেখাননি। তাতেই অভূতপূর্ব ফলাফলে দলের মধ্যেই আঙুল তুলতে শুরু করেছে গেরুয়া শিবির। সেখানে কাটাছেঁড়া করতে নেমে উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। তবে কী আগামী দিনে বিশেষ পদক্ষেপ নেবে দীন দয়াল উপাধ্যায় মার্গের নেতারা? প্রশ্ন রাজনৈতিক মহলে।