Sri Lanka Crisis: গণবিক্ষোভে পুড়ছে পদত্যাগী প্রধানমন্ত্রী বিক্রমাসিংহের বাড়ি

প্রেসিডেন্ট আগেই ভয়ে পালিয়েছেন

38

শ্রীলংকার পরিস্থিতি (Sri Lanka Crisis) আরও উত্তপ্ত। অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পলাতাক প্রেসিডেন্ট। আর চাপের মুখে পদত্যাগী প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের বাড়ি গণবিক্ষোভে পু়ড়ছে।

হাজার হাজার জনতা রনিল বিক্রমাসিংহের বাড়ি ঘিরে রেখেছেন। তাঁর বাড়িতে আগুন ধরিয়ে উল্লাস চলছে। নিরাপত্তারক্ষীরা কাঁপছেন ভয়ে।

ঠিক একইরকম পরিস্থিতি হয়েছিল গত মে মাসে। প্রবল গণ বিক্ষেভের মুখে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসের বাড়িতে আগুন ধরায় শ্রীলংকাবাসী। মাহিন্দা পালিয়ে যান। তাঁর জায়গায় সরকারি দলের সম্মতিতে বিরোধী পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী করা হয়েছিল রনিল বিক্রমাসিংহকে।

অর্থনৈতিক সংকটের কারণে অচল শ্রীলংকায় গণবিক্ষোভ চরমে। বিক্ষোভকারীরা প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের বাসভবনের দখল নিয়েছেন। তিনি পলাতক। এর পরেই প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেন রনিল বিক্রমাসিংহে। তার পরেই তাঁর বাড়িতে আগুন ধরানো হলো।

পদত্যাগের ঘোষণার পর রনিল বিক্রমাসিংঘে সিংহলি ভাষায় একটি অডিও প্রকাশ করেন, যেখানে তিনি বলেন, তিনি পদত্যাগ করতে প্রস্তুত, কিন্তু কিছু শর্তসহ।
টুইটারে এক অডিও বার্তায় রনিল বলেন, ‘বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির প্রধানের সফর এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের সঙ্গে সিদ্ধান্তমূলক আলোচনার জন্য দেশের একটি সরকার অপরিহার্য। সরকারের প্রশাসন ছাড়া দেশকে নেতৃত্ব দেওয়া ভুল হবে।’

বিক্রমাসিংহের পদত্যাগ-এর কয়েক ঘন্টা পরে তার অফিস ঘোষণা করে যে তিনি একটি নতুন ঐক্য সরকারের জন্য পথ তৈরি করতে পদত্যাগ করতে ইচ্ছুক।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)