ইরানকে ৬-২ গোলে চূর্ণ করে নিজেদের বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করল ইংল্যান্ড

19
England started their World Cup

বিশ্বকাপ (World Cup) অভিযান শুরুর আগেই মাঠের বাইরের কারণে খবরের শিরোনামে থাকা একটি দেশ। তার সামনে পড়েছে বিশ্বর‍্যাঙ্কিংয়ে পঞ্চম স্থানে থাকা ফুটবল টিম। ফলে যা হওয়ার তাই হল। ইংল্যান্ডের সামনে টিকতেই পারল না ইরান। মধ্য প্রাচ্যের দেশটির ডিফেন্স নিয়ে ছেলেখেলা করলেন সাকা-স্টার্লিংরা। প্রথমার্ধেই তিন গোলে এগিয়ে গিয়েছিল থ্রি লায়নস। সেই ধাক্কা সামলে আর ম্যাচে ফিরে আসতে পারেনি ইরান। শেষ পর্যন্ত ৬-২ গোলে ম্যাচ শেষ হল।

ম্যাচের বাঁশি বাজার আগেই তীব্র প্রতিবাদে শামিল হন ইরানের ফুটবলাররা। প্রথামাফিক জাতীয় সংগীত গাইতে অস্বীকার করেন মেহদি তারেমিরা। গত দু’মাসের বেশি সময় ধরে হিজাব পরার বিরোধিতা করে প্রবল বিক্ষোভ চলছে ইরানে। নানা ভাবে প্রতিবাদীদের সমর্থন জানিয়েছেন ইরানের জাতীয় দলের ফুটবলাররা। দল থেকে বাদ পড়ে যাবেন, দেশে ফিরে মারাত্মক বিপদের মধ্যে পড়বেন জেনেও জাতীয় সংগীত গাইলেন না তাঁরা। মাঠের মধ্যে যাই হোক। মাঠের বাইরে নিঃসন্দেহে তাঁরাই চ্যাম্পিয়ন।

ম্যাচ শুরু হতেই চোট পেয়ে বেরিয়ে যান ইরানের গোলকিপার আলিরেজা বেইরানভান্ড। তারপরেই ইরানের বক্সে ঢুকে আক্রমণ শানাতে থাকেন হ্যারি কেনরা। ৩৫ মিনিটে ইংল্যান্ডের হয়ে প্রথম গোল করেন জুড বেলিংহ্যাম। বাঁক খাওয়ানো অসাধারণ শটে বলটি সোজা জালে জড়িয়ে যায়। এই ধাক্কা সামলে ওঠার আগেই ফের গোল। ম্যাগুয়েরের বাড়ানো পাস ধরে বেশ দূর থেকেই শট নিয়েছিলেন সাকা। গোলকিপারকে বোকা বানিয়ে গোল করেন তিনি। দু’মিনিটের মাথায় কেনের ক্রস ধরে গোল করেন রহিম স্টার্লিং।

প্রথমার্ধে তিন গোল খেয়েই ম্যাচ থেকে একেবারে হারিয়ে যায় ইরান।এগিয়ে থেকেও একেবারেই আত্মতুষ্টিতে ভোগেনি সাউথগেটের শিষ্যরা। বিরতির পরেও একইরকম ঝাঁজালো আক্রমণ করতে থাকে ইংল্যান্ড। ৬২মিনিটে ফের গোল করেন সাকা। তবে ৬৫ মিনিটে ব্যবধান কমান ইরানের তারেমি। ৭০ মিনিটে একসঙ্গে তিনটি পরিবর্তন করেন সাউথগেট। নামার এক মিনিটের মধ্যেই গোল করেন র‍্যাশফোর্ড। ৮৯ মিনিটে কার্যত ফাঁকা মাঠে গোল করেন গ্রিলিশ। ম্যাচের একেবারে শেষ মুহূর্তে পেনাল্টি পেয়ে গোল করেন তারেমি। ইরানের বিরুদ্ধে এত বড় ব্যবধানে জয় পেয়ে স্বস্তিতেই থাকবে ইংল্যান্ড।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)