ডার্বি ম্যাচের আগে দীপেন্দু বিশ্বাসের মন্তব্য ঘিরে কৌতুহল তুঙ্গে

142
Dipendu Biswas

আগামী মঙ্গলবার, কলকাতা লিগের হাইপ্রেসার গেম ডার্বি ম্যাচ।যাদবপুর কিশোর ভারতী স্টেডিয়ামে মহামেডান স্পোটিং ক্লাব মুখোমুখি হতে চলেছে বিনো জর্জের ইস্টবেঙ্গল এফসির। চলতি লিগে সাদা কালো ব্রিগেড নিজেদের শেষ তিন ম্যাচে কোনও গোল না খেয়ে বিপক্ষের জালে ৯ গোল করেছে।

এক্কেবারে ক্লিনচিট পারফরম্যান্সের কারণে ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে ডার্বি ম্যাচ ঘিরে রোমাঞ্চিত মহামেডান স্পোটিং ক্লাবের ফুটবল সচিব তথা টিম ম্যানেজার দীপেন্দু বিশ্বাস। সোমবার, মহামেডান স্পোটিং’র মিডিয়া টিমের কাছে সাক্ষাৎকার সেশনে দলের ম্যানেজার দীপেন্দু বিশ্বাস জানান,”আমরা টিমকে বুস্ট আপ করতে পারি বেঞ্চে বসে।এটা একেবারে অন্যরকম অভিঞ্জতা, এখানে আমার কিছু করার থাকবে না।খেলোয়াড়রাই সবকিছু, খেলোয়াড়রাই ম্যাচ জেতাবে।” দীপেন্দু বিশ্বাস বলতে থাকেন, “আমরা শুধু খেলোয়াড়দের বড়ো ম্যাচ সম্পর্কে বোঝাতে পারি,তারা যাতে ভালো খেলে তার জন্য মোটিভেট করতে পারি।”

আসলে দীপেন্দু বিশ্বাস এতগুলো কথা বলেছেন নিজের ডার্বি ম্যাচ খেলার অভিঞ্জতা থেকে। সাক্ষাৎকারে ডার্বি ম্যাচ নিয়ে স্মৃতি রোমহ্ননে বসে মহামেডান টিম ম্যানেজার বিশ্বাস বলেন,”যখন ফুটবলার হিসেবে খেলতাম ওই সময়ে ডার্বি ম্যাচের সকাল থেকেই ম্যাচ নিয়ে মনসংযোগ করতাম,গোল করতে হবে,টিমকে জেতাতে হবে।সেটা অন্য একরকম ছিল,আর এখন বিষয়টা পুরো আলাদা…।”

এরই সঙ্গে দীপু দা (ভারতীয় ফুটবল এরিনাতে দীপেন্দু বিশ্বাস নিজের দীপু নামেও সুপরিচিত) কোচ আন্দ্রে চেরনশিভের কোচিং স্টাইলের প্রসঙ্গ তুলে বলেন,”আমরা ডার্বি ম্যাচে খেলা চলাকালীন বেঞ্চে বসে কোচ আন্দ্রে চেরনশিভের ফুটবল কোচিং দর্শন খেলোয়াড়দের কাছে রাখতে পারি।”

চলতি লিগে বিনো জর্জের ইস্টবেঙ্গল টিমের পারফরম্যান্স মোটেও আহামরি নয়। শেষ তিন ম্যাচের মধ্যে ভবানীপুরের বিরুদ্ধে হেরেছে জেসিন টিকেরা আর এক ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র করেছে এরিয়ানের বিরুদ্ধে এবং খিদিরপুর ক্লাবের বিরুদ্ধে গোলশূন্যতে ড্র করেছে।

কলকাতা লিগের ডার্বি ম্যাচে অঙ্কিত মুখার্জী, মোব্বাসির রহমান,নবি হোসেন খান,সুরেশ জয়সোয়ালরা চাপের মুখে কতটা নিজেদের মেলে ধরতে পারে আদৌ তারা লম্বা রেসের ঘোড়া কিনা তা বোঝা যাবে। তাই ইস্টবেঙ্গল এফসির রিজার্ভ দলের কাছে মহামেডান স্পোটিংর বিরুদ্ধে ডার্বি ম্যাচ “অ্যাসিড টেস্ট”।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)