TMC: অখিল গিরিকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবিতে মহিলা কমিশনকে চিঠি সৌমিত্রের

17

বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্যের কড়া ভাষায় জবাব দিতে গিয়ে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর বিরুদ্ধে আপত্তিকর মন্তব্য করে বসেন রাজ্যের কারামন্ত্রী অখিল গিরি। তৃণমূলের(TMC) এই মন্ত্রীর মন্তব্য ঘিরে রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়েছে, রীতিমতো সরগম রাজ্য-রাজনীতি। রাষ্ট্রপতি সম্পর্কে এরূপ কুরুচিকর মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে শাস্তির দাবিতে এবার অখিল গিরিকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে মহিলা কমিশনকে চিঠি দিলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। 

মহিলা কমিশনকে পাঠানো চিঠিতে সৌমিত্র লেখেন,”একজন আদিবাসী মহিলা দেশের রাষ্ট্রপতি হতে পারেন। এটাই ভারতবর্ষ। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী অখিল গিরি যে ধরনের ভাষা ব্যবহার করেছেন, তাতে আমি লিখিতভাবে জানিয়েছি জাতীয় মহিলা কমিশনকে, দেশের প্রধানমন্ত্রীকে”। একইসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার অধ্যক্ষ যাতে অখিল গিরির বিধায়ক পদ খারিজ করেন, সেই দাবিও জানিয়েছেন তিনি। 

উল্লেখ্য, দাঁত ফোকলা, হাফ মন্ত্রী। কাকের মতো দেখতে। এসব লোকের কথার উত্তর দিই না। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর এহেন মন্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর বিরুদ্ধে কুরুচিকর মন্তব্য করে বসেন রামনগরের বিধায়ক এবং রাজ্যের কারামন্ত্রী অখিল গিরি। তিনি বলেন, “বলে দেখতে ভাল নয়। কী রূপসী! কী দেখতে ভাল! আমরা রূপের বিচার করি না। তোমার রাষ্ট্রপতির চেয়ারকে আমরা সম্মান করি। কিন্তু তোমার রাষ্ট্রপতি কেমন দেখতে বাবা?”

তৃণমূল বিধায়কের করা এহেন মন্তব্যকে হাতিয়ার করে সুর চড়িয়েছে বিজেপি। মুখ্যমন্ত্রী আদিবাসী বিরোধী বলে কটাক্ষ করতে পিছপা হননি রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। এমনকি অবিলম্বে রাজ্যের মন্ত্রীর ক্ষমা চাওয়া উচিত বলেও দাবি করেছে বিজেপি।

শনিবার সকালে রামনগরের বিধায়ক বলেন,’এক মাস আগে থেকে শুভেন্দু অধিকারী বিভিন্ন জায়গায় আমার সম্পর্কে কটূক্তি করেছেন। আমি বয়স্ক মানুষ। আমার মনে ক্রোধ জন্মেছিল। রাষ্ট্রপতি মহোদায়াকে আমি কোনও অসম্মান করিনি। তাঁর প্রতি আমার অগাধ শ্রদ্ধা রয়েছে। যে কথা আমার মুখ থেকে বেরিয়েছে, তা ক্রোধের বশে বেরিয়ে এসেছে। আমি অনুতপ্ত”।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)