রাজ্য জুড়ে ঘুগনি চা বিক্রির ধুম, CPIM স্টলে বিক্রি লক্ষাধিক

169
CPIM Mamata Banerjee Book stall Durga Puja

শারোদতসবে রাজনৈতিক উত্তাপ প্রবল। এই গরম রাজনৈতিক হাওয়ায় বিধানসভায় বিরোধী দল বিজেপি (BJP) মাঠে নেই বলেই কটাক্ষ শুরু। আর বিধানসভায় শূন্য CPIM দেদার ঘুগনি মুড়ি চপ চা বিলোচ্ছে নিজেদের বই বিপনী কেন্দ্র (স্টল) থেকে। এতেও কটাক্ষ, মমতার (Mamata Banerjee) দেখানো পথে লাভবান বাম।  

উৎসবে কলকাতা সহ বিভিন্ন জেলায় সিপিআইএমের (CPIM) বই বিপনী কেন্দ্রগুলি ভাঙায় অভিযুক্ত তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)। কলকাতায় সাংসদ বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যকে আটক ও চলচ্চিত্র পরিচালক কমলেশ্বর মু়খার্জিকে গ্রেফতারের পর তৃণমূল মুখপাত্র কু়ণাল ঘোষের (Kunal Ghosh) সাফাই একসময় জাগো বাংলা (TMC মুখপত্র) স্টল ভাঙা হয়েছিল। তিনি সাফাই দিলেও পরে চাপের মুখে কমলেশ্বর সহ বাকিদের ছেড়ে দেয় কলকাতা পুলিশ।

কলকাতার পর কোচবিহারে ভাঙা হয়েছিল বাম সংগঠনের বই বিপনী কেন্দ্র (Book stall)। সিপিআইএমের (CPIM) অভিযোগ, বেশ কয়েকটি জেলা থেকে হামলার খবর এসেছে। হামলা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকরা। তবে কোনও বিজেপির স্টলে হামলার ঘটনা সামনে আসেনি। এর থেকেই স্পষ্ট তৃণমূল ও বিজেপি আঁতাত।

এই বিতর্কের মাঝে বাম বই বিক্রির স্টলগুলিতে (Book stall) বই কেনার ভিড় হয়। কলকাতার কিছু বিপনীতে লক্ষাধিক টাকার বিক্রি হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। রাজনৈতিক প্রবন্ধ, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বই, জ্যোতি বসুর আত্মজীবনী সহ বিভিন্ন বইয়ের কদর বেশি।

বই বিপনী কেন্দ্র (Book stall) নিয়ে রাজনৈতিক উত্তেজনার মাঝে বাম সংগঠনগুলি মুখ্যমন্ত্রীর দেখানো কর্মসংস্থানের পদ্ধতি গ্রহণ করে ঘুগনি, চপ, চা, ঝালমুড়ি বিক্রি ও বিলি করতে শুরু করে। উত্তরে আলিপুরদুয়ার থেকে দক্ষিণ ২৪ পরগনা সর্বত্র এমন ছবি দেখা গেছে। কোথাও এক টাকা কোথাও বিনামূল্যে চলছে ঘুগনি মুড়ি চপ বিক্রি।

এরই মাঝে বিভিন্ন স্টলে (Book stall) বাম ছাত্র যুব সংগঠনের সমর্থকরা বুকে পিঠে নিজেদের উচ্চশিক্ষাগত যোগত্যার পোস্টার সাঁটিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) কর্মসংস্থান প্রকল্প ঘুগনি বিক্রিতে নেমে পড়েছেন। সিপিআইএমের (CPIM) দাবি, উৎসবের আগে মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee) সরকারি অনুষ্ঠান থেকে যেমন কর্মসংস্থানের বার্তা দিয়েছেন তেমনই চলছে। এ রাজ্যের বেকার যুবক যুবতীদের ঘুগনি মুড়ি চা চপ ঝালমুড়ি বিক্রিতে উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) তাঁর সরকারের উন্নয়ন ও বিপুল কর্মসংস্থানের দাবি করেন। তিনি কাশফুল থেকে বালিশ তৈরির বার্তা দেন রাজ্যের যুব সমাজকে।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)